১০টি পুলিশ চেকপোস্ট স্থাপন রোহিঙ্গা ক্যাম্প নিয়ন্ত্রণে নেমেছে সেনাবাহিনী

শহিদুল ইসলাম,উখিয়া ◑

করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে কোয়ারেন্টিন এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার জন্য  বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) থেকে কঠোর অবস্থান নিয়েছে সেনাবাহিনী।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) এ তথ্য জানিয়েছে।

আইএসপিআর এর এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবার থেকে সেনাবাহিনী দেশের সব স্থানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং হোম কোয়ারেন্টিনের বিষয়টি কঠোরভাবে নিশ্চিত করবে।

সরকারের দেওয়া নির্দেশাবলী অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।তাই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে অবশেষে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিদেশিদের অবাধ চলাচলের লাগাম টানতে কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী।

টহল জোরদারের পাশাপাশি রোহিঙ্গা ক্যাম্পের প্রবেশ পথে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। আর রোহিঙ্গাদের ক্যাম্প থেকে বের হওয়া বন্ধ করতে ক্যাম্পের অভ্যন্তরে নতুন ১০টি চেকপোস্ট স্থাপন করেছে পুলিশ। তবে এ মুহূর্তে ক্যাম্প লকডাউনের প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন।

উখিয়ার টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ পয়েন্ট-রোহিঙ্গা ক্যাম্পের প্রবেশমুখ বলা চলে। আর এখানেই করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকানোর অংশ হিসেবে ক্যাম্পে বিদেশিদের অবাধ যাতায়াত বন্ধ করতে পুলিশের পাশাপাশি স্থাপন করা হয়েছে সেনাবাহিনীর চেকপোস্ট।

আপাতত ত্রাণ, স্বাস্থ্য কর্মী কিংবা সরকারি কর্মকর্তা ছাড়া কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। এর পাশাপাশি জনসমাগম এড়াতে চলছে নিয়মিত টহল। আর রোহিঙ্গারা বলছে, করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে তারা সরকারি নির্দেশনা মানার চেষ্টা করছেন।

রোহিঙ্গারাও যাতে ক্যাম্প ছেড়ে বাইরে যেতে না পারে তার জন্য নতুন করে ১০টি চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মর্জিনা আক্তার মর্জিনা।