মুজিববর্ষে উৎসবে মাতবে কক্সবাজার: হোটেলে ২৫ শতাংশ ছাড়

ছৈয়দ আলম, কক্সবাজার ◑

আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে ঘোষিত মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা। জাকজমকপূর্ণ আয়োজনে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সফল করতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

বুধবার (৮ জানুয়ারি) বিকাল ৪ টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিক সম্মেলনে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন।

সভায় জেলা প্রশাসক জানান, মুজিব বর্ষের ক্ষণগণনা উপলক্ষে কক্সবাজার শহর ও সমুদ্র সৈকত এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের প্রতিকৃতি লাইটিং-এর মাধ্যমে প্রদর্শন করা হবে। মুজিববর্ষে উৎসবে মাতবে কক্সবাজার।

তিনি দল মত নির্বিশেষে সবার প্রতি মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান।

সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়, ১০ জানুয়ারি সমুদ্র সৈকতের লাবনী পয়েন্টে ক্ষণগণনার কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়েছে। পরে পর্যায়ক্রমে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযান করা হবে।

‘ক্ষণগণনার প্রথম দিনে ১০০টি ফানুস, ১০০টি কবুতর উড়ানো, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ১০০টি ছবির চিত্র প্রদর্শনীসহ নানা আয়োজন হাতে নেয়া হয়েছে। বিশ্বের দীর্ঘতম সৈকতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষের ক্ষণগণণার কর্মসূচী অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন।

এ সময় ১০ জানুয়ারী সাগরতীরে সকল আবাসিক হোটেলে পর্যটকদের জন্যে শতকরা ২৫ শতাংশ রুমের ভাড়া ছাড় দেয়া হবে। এছাড়াও জেলার ৮টি উপজেলার একইভাবে ক্ষণগণনার দিনক্ষণ ঠিক করা হয়েছে এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকীর পালনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে’।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, ‘ক্ষণগণনার শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আবদুল মান্নান উপস্থিত থাকবেন। এতে ত্রিশ সহস্রাধিক দর্শনার্থীর সমাবেশ ঘটবে। স্থানীয় সাংসদ ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক নের্তৃবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধা, এনজিও, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত থাকবেন।

এছাড়াও ঢাকা তেজগাঁও পুরাতন বিমান বন্দরে ক্ষণগণনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সৈকতের লাবনী পয়েন্টে জেলা প্রশাসনের মুক্ত মে এলইডির মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রসার করা হবে। সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আশরাফুল আফসার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: মাসুদুর রহমান মোল্লা উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে জেলায় কর্মরত প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।