রিক্সা চালক থেকে কোটিপতি: রামুর আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী মঞ্জুর গ্রেফতার

রামু প্রতিনিধি ◑ কক্সবাজারের রামু উপজেলার রাজারকুল ইউনিয়নের পাঞ্জাগানা এলাকার আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী মনজুর আলম প্রকাশ শিয়াল মনজুরকে এলাকার সাধারণ মানুষের সহায়তায় আটক করেছে রামু থানা পুলিশ।

আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী পাঞ্জাগানা বাজারের পশ্চিম ঘোনার পাড়া এলাকার মো. নবীর ছেলে।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি ) রাত ১২টার দিকে পাঞ্জাগানা বাজারের ধানসিঁড়ি হোটেল থেকে তাকে আটক করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রামু থানার ওসি আবুল খায়ের।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, মনজুর আলম এক জন প্রকৃত মাদক ব্যবসায়ী। সেই অনেক বছর ধরে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। তার রয়েছে ডজন খানেক মামলা। এরমধ্যে হাফ ডজন মাদকের মামলা। আর বাকি মামলা হচ্ছে-নারী নির্যাতন, চুরি ও বন মামলা। দফায় দফায় মাদকসহ বিভিন্ন মামলা নিয়ে কারাগারেও গিয়েছিল মনজুর। টাকার প্রভাবে বেশিদিন কারাভোগ করতে হয়নি থাকে।

Loading...

এলাকাবাসী আরো জানান, অতীতে মনজুর আলম দিনের বেলায় রিকশা চালাতো। আর রাতের বেলায় কাঠ চুরি করার জন্য বনে যেতো। অল্প সময়ের মধ্যে কোটিপতি বনে গেছে মনজুর আলম। সেই মাদকের টাকা দিয়ে নিজ এলাকায় নির্মাণ করেছে বিলাস বহুল বাড়ি। যা দেখলে চোখ না ফেরার মতো। রয়েছে ২০ টির উপরে সিএনজি ও অঢেল সম্পদ। অল্প সময়ে সবকিছু করেছে মাদকের টাকা নিয়ে এমনটাই দাবি এলাকাবাসীর।

উল্লেখ্য, বিগত দেড় মাসের মধ্যে মনজুর আলমের ৫ টির উপরে দেশীয় তৈরি চোলাই মদসহ বহনকারী গাড়ি আটক করেছে প্রশাসন। এর মধ্যে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে রামু বাইপাস এলাকা থেকে চোলাই মদ নিয়ে জীপ গাড়িসহ ড্রাইভারকে আটক করেছে র‌্যাব।

ড্রাইভারের স্বীকারোক্তিতে শুক্রবার সন্ধ্যায় মনজুর আলম কে আটক করার জন্য তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ছিল র‌্যাব সদস্যরা। বাড়ির ভিতর দিয়ে বিকল্প রাস্তা থাকার কারণে তাকে আটক করতে সক্ষম হয়নি।

সেই সুত্র ধরে এলাকার সাধারণ জনগণ মাদক ব্যবসায়ী মনজুর আলমকে আটকিয়ে রেখে রামু থানা পুলিশকে খবর দিলে; পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।