বিয়ের আসরে কনের অবৈধ সম্পর্কের ভিডিও ফাঁস করলেন বর: ভিডিওসহ

অনলাইন ডেস্ক : বিয়ের আসরে কনের ‘বিয়েবহির্ভূত সম্পর্কের অন্তরঙ্গ দৃশ্য’ ফাঁস করে দিলেন বর। সবার সামনে চালিয়ে দিলেন পর পুরুষের সঙ্গে গোপন প্রেমের অন্তরঙ্গ দৃশ্যের ভিডিও। এই দৃশ্য চীনের সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়।

চীনের সোশ্যাল মিডিয়া উইবোতে সম্প্রতি হ্যাশট্যাগ ‘ব্রাইড এক্সপোজ অ্যাট ওয়েডিং’ ট্রেন্ডিং হয়ে ওঠে। আসলে একটি ভিডিও ঘিরে তৈরি হওয়া হ্যাশট্যাগ এটি। ভিডিওটি বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরতে থাকে।

ভিডিওতে দেখা যায়, বিয়ের আসরে আমন্ত্রিত অতিথিরা জমায়েত হয়েছেন। সকলের মাঝখান দিয়ে হেঁটে স্টেজের ওপর উঠছেন বর এবং কনে। পেছনে বাজছে মিউজিক। একটু পরই স্টেজের ঠিক পেছনের দেয়ালে প্রজেক্টরে একটি ভিডিও চলতে শুরু করে।

ভিডিও শুরুর আগে ঘোষণা দেয়া হয়, বর কনের প্রেমের কাহিনী তুলে ধরা হচ্ছে। কিন্তু যা ফুটে উঠল পর্দায়, তাতে বিয়ে ভাঙার জোগাড়। কনের সঙ্গে বরের ভগ্নিপতির যৌনতার একটি ভিডিও চলতে আরম্ভ করে। আর সঙ্গে সঙ্গে স্টেজে দাঁড়িয়ে ঝগড়া শুরু হয়ে যায় বর-কনের। বর কনেকে ধাক্কা দেন আর পাল্টা কনে তার দিকে হাতের ফুলের তোড়া ছুঁড়ে দেন।

Loading...

চীনের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, বর কনেকে বলেন, তুমি কি ভেবেছিলে আমি এ সম্পর্কে আগে জানতাম না।অনেকেই বর, কনেকে ক্যামেরাবন্দি করতে মোবাইল অন করেন। সেই ক্যামেরাতেই ধরা পড়ে পুরো দৃশ্য। পরে যা ভাইরাল হয়ে যায় চীনের সোশ্যাল মিডিয়া উইবোতে।

উইবোতে ওই ব্যক্তি পরে বেশ কয়েকটি পোস্ট করেন। সেখানে তিনি দাবি করেন, এই ভিডিও তিনি নজরদারি ক্যামেরার রেকর্ডিং থেকে পেয়েছেন। তিনি ভাবতেও পারেননি এমন কিছু সামনে চলে আসবে। বিয়েবাড়ির আয়োজন যেখানে হয়েছিল, সেই ভবনের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজগুলো দেখছিলেন তিনি। হঠাৎ দেখতে পান তার হবু স্ত্রী ও (বরের) ভগ্নিপতি যৌনতায় লিপ্ত।

সংবাদমাধ্যম ‘এশিয়া ওয়ানা’ জানিয়েছে, বিয়ের আগেই হবু বরের দ্বারা নির্যাতনের শিকার হতেন ওই কনে। তাই হবু বরের বোনের স্বামীর সঙ্গে সময় কাটাতেন তিনি। সেখান থেকে ধীরে ধীরে ‘অবৈধ সম্পর্ক’ গড়ে ওঠে।

এই ভিডিও প্রকাশিত হওয়ার পর কনের বাড়ির লোকজন ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় থেকে সরিয়ে নিতে বলেন ওই ব্যক্তিকে। না হলে তারা বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দেন তারা। এই ঘটনার পর তাদের সম্পর্কের বর্তমান অবস্থা কী তা জানা যায়নি।

  • আনন্দবাজার