৩ কোটি ৯০ লাখ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফে বিজিবির সাথে গোলাগুলিতে ‘মাদক কারবারি’ নিহত

গিয়াস উদ্দিন ভুলু,কক্সবাজার জার্নাল ◑

টেকনাফে বিজিবির সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক মাদক পাচারকারী নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে বিজিবি। এ ঘটনায় বিজিবি দুই সদস্য আহত হয়েছে।

তথ্য সূত্রে জানা যায়,বিজিবি গোপন সংবাদে জানতে পারে মিয়ানমার থেকে একটি বড় ইয়াবার চালান হ্নীলা ইউনিয়ন জাদীমুড়া নাফনদী সীমান্ত এলাকা দিয়ে প্রবেশ করবে এবং ইয়াবার চালানটি উক্ত স্থানে খালাস করা হবে। সেই গোপন সংবাদের তথ্য অনুযায়ী টেকনাফ ২ বিজিবির আওয়তাদ্বীন দমদমিয়া বিওপিতে কর্মরত বিজিবির একটি চৌকষ দল ২৪ জানুয়ারি গভীর রাতে ঐ এলাকায় অবস্থান নেয়।

এরপর মাদক পাচারকারীরা বিজিবির উপস্থিতি বুঝতে পেরে এলোপাতাড়ী গুলি বর্ষণ শুরু করে। বিজিবিও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের গোলাগুলি চলাকালীন সময়ের মধ্যে মাদক পাচারকারী দলের কয়েকজন সদস্য কৌশলে পালিয়ে যায়। গোলাগুলি থেমে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর উক্ত স্থান থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অজ্ঞাত নামা এক যুবককে পড়ে থাকতে দেখে।

বিজিবি সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করে সেখানে পৌছার পর অবশেষে দায়িত্বরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করে।

এদিকে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ৩ কোটি, ৯০ লক্ষ টাকা মুল্যমানের ১ লাখ ৩০ হাজার ইয়াবা, দেশীয় তৈরী ১টি এলজি অস্ত্র, ১টি কার্তুজ উদ্ধার করতে সক্ষম হয় বিজিবি।

এই অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফ ২ বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্নেল ফয়সাল হাসান খান (পিএসসি) কক্সবাজার জার্নালকে জানান, মাদক কারবারে জড়িত অপরাধীরা এখনো বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে তাদের অপকর্ম অব্যাহত রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছে। তবে তাদের সেই অপচেষ্টা প্রতিরোধ করার জন্য সীমান্ত প্রহরী বিজিবি সদস্যদের মাদক বিরোধী চলমান এই যুদ্ধ অব্যাহত থাকবে।