অস্ত্র,গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফে পুলিশের গুলিতে ইয়াবা কারবারী ইমাম হোসেন নিহত

গিয়াস উদ্দিন ভুলু,কক্সবাজার জার্নাল ◑
টেকনাফে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ইমাম হোসেন নামে ৩৫ বছর বয়সি এক অপরাধী নিহত।
উক্ত ঘটনায় মাদক বহনকারী একটি সিএনজি পুড়ে ছাঁই।

ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র,গুলি,ইয়াবা উদ্ধার।

পুলিশের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে জানা যায়, মাদক পাচারের গোপন সংবাদ পেয়ে ২৪জুন (বুধবার) ভোর ৫টার দিকে টেকনাফ মডেল থানার (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল হ্নীলা ইউনিয়ন রঙ্গীখালী তিন রাস্তার মাথা সংলগ্ন টেকনাফ টু কক্সবাজার প্রধান সড়ক এলাকায় অভিযান গেলে সিএনজিতে করে মাদকের চালান বহনকারী অপরাধীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ী গুলিবর্ষন শুরু করে করে এতে পুলিশের কয়েকজন সদস্য আহত হয়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়ে। দুই পক্ষের গোলাগুলি চলাকালীন সময়ে মাদক বহনকারী সিএনজি আগুন ধরে যায়। একপর্যায়ে মাদক পাচারে জড়িত অপরাধীরা কৌশলে পিছু হটে পালিয়ে যায়। এরপর ঘটনাস্থল তল্লাশী করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

টেকনাফ হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, নিহত যুবক হচ্ছে, হ্নীলা পুর্বরঙ্গীখালী লামার পাড়া এলাকার মৃত সোলেমানের পুত্র ইমাম হোসেন প্রকাশ ইমন (৩৫)।
এদিকে ঘনাস্থল তল্লাসী করে অস্ত্র,গুলি,ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।

সংঘটিত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ কক্সবাজার জার্নালকে জানান,টেকনাফ হ্নীলা ইউনিয়ন কেন্দ্রিক মাদক পাচারে জড়িত বেশ কয়েকটি গ্রুপ বিভিন্ন কৌশলে তাদের মাদক ব্যবসাসহ নানা অপকর্ম অব্যাহত রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

তবে তাদের সেই অপচেষ্টা এবং মাদক পাচারে জড়িত অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের নির্মুল করার জন্য আমাদের পুলিশ সদস্যদের চলমান এই যুদ্ধ অব্যাহত আছে এবং থাকবে।