কক্সবাজারে ‘বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়’ বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে- শিক্ষা উপমন্ত্রী

রোমানা ইয়াছমিন পুতুল ◑

শিক্ষা উপমন্ত্রী কে কক্সবাজারে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা সম্পর্কে দাবী জানালে তিনি বলেন, আমি ইতিপূর্বেও বলেছিলাম কক্সবাজারে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে। কারণ টেকনাফ থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত এতদূর বিশাল জায়গায় এখনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় নেই। তাই কক্সবাজারে অবশ্যই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে।

শনিবার ৮ ফেব্রুয়ারী সকাল সাড়ে ১১ টায় চট্টগ্রাম থেকে সড়কপথে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে বিকেল ৩টার দিকে কক্সবাজার পৌঁছে সার্কিট হাউজে কিছুক্ষণ অবস্থান করেন। এ সময় ‘কক্সবাজারে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় চাই’ কমিটির আহবায়ক কমিটির সদস্যরা সার্কিট হাউজে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহোদয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা ও স্বাগত জানায়।

তিনি সন্ধ্যা ৬টার দিকে কক্সবাজার শহরের শহীদ দৌলত ময়দানে (পাবলিক হল ময়দান) হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের কক্সবাজার জেলা সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য প্রদান করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে প্রস্থানের সময় উৎসুক ছাত্ররা গতিরোধ করে পুণরায় বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্রুত বাস্তবায়নের কথা বললে তিনি বলেন- আমি আপনাদের জনপ্রতিনিধি এমপি সাইমুম সরওয়ার কমল সাহেবের উপস্থিতিতে বলছি, কক্সবাজারে “বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়” অবশ্যই হবে এবং এটা ১০০ ভাগ সত্যি।

ইতিমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে “বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়, কক্সবাজার” নামে একটি ফাইল খোলা হয়েছে।”

পরিশেষে তিনি সন্ধ্যা ৭:৪০ টায় অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হোন।