কক্সবাজারে আ.লীগের সম্মেলন ৬ মার্চের আগেই!

ডেস্ক রিপোর্ট ◑ আগামী ৬ মার্চের মধ্যে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন করতে কেন্দ্রীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি মেয়াদোত্তীর্ণ সম্মেলন হয়নি এমন ৪৫টি জেলার তালিকায় কক্সবাজারও রয়েছে। তবে এ ব্যাপারে এখনো চিঠি পায়নি জেলা আওয়ামী লীগ। কিন্তু এদিকে জানা যায়, এখনো সম্মেলন হয়নি জেলার কোন উপজেলা কমিটির। এমনকি সম্মেলন হয়নি অধিকাংশ ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কমিটির।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এ কে এম মোজাম্মেল হক ২০০৫ সালের ১০ মে মৃত্যুবরণ করলে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন প্রয়াত এড. এ কে আহমদ হোসেন। তিনি ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসাবে ১১ বছর দায়িত্ব পালন করেন।

এড. একে আহমদ হোসেনের দায়িত্ব পালনকালে জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন সম্পন্ন করার জন্য কয়েকদফা তারিখ নির্ধারিত হলেও  বিভিন্ন কারণে ১১ বছর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি। তবে পরবর্তীতে ২০১৬ সালের ৩১ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়

Loading...

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের বহু প্রতিক্ষীত সম্মেলন। উক্ত সম্মেলন উদ্বোধন করেন তৎকালীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের  সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। তিনি দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্ত মোতাবেক জেলা সভাপতি হিসাবে এড. সিরাজুল মোস্তফা ও সাধারণ সম্পাদক হিসাবে মুজিবুর রহমানের নাম ঘোষণা করেন। একই বছরের ১৯ অক্টোবর জেলা আওয়ামী লীগের পুর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয় কেন্দ্রিয় কমিটি।

জেলা আওয়ামী লীগের একজন শীর্ষনেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, বর্তমান কমিটির নেতৃত্বে দলের সাংগঠনিক তৎপরতা আগের চেয়ে শাক্তিশালী হয়েছে। শুধুমাত্র বলতে গেলে উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন ইউনিটের সম্মেলন সম্পন্ন করতে পারেনি এটাই তাদের ব্যর্থতা। অন্য সব দিক  দিয়ে বর্তমান কমিটি এগিয়ে আছে।

কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের ৮টি ওয়ার্ডের সম্মেলন সফল ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। অন্য তিনটি ওয়ার্ডের সম্মেলন এখনো সম্পন্ন হয়নি।

এদিকে জানা যায়,  রামু  চকরিয়া ও মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলায় কয়েকটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও মহেশখালী, কুতুবদিয়া, পেকুয়া, সদর উপজেলা ও উখিয়া উপজেলার কোন ইউনিয়নে সম্মেলন সম্পন্ন হয়নি। এমনকি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনও এখনো সম্পন্ন হয়নি।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান জানিয়েছেন, এখনো কেন্দ্রের নির্দেশনা পাইনি। পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।